মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

প্রশিক্ষণ মুল্যায়ন

দক্ষতা উন্নয়নে আয়োজিত প্রশিক্ষণের কার্যকারিতা নিরুপণের জন্য কোর্স মূল্যায়ন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন। সম্প্রতি সমাপ্ত হওয়া KOICA প্রোজেক্টের সহায়তায় টিআইসিআই এর ২০ জন প্রশিক্ষককে কোরিয়া থেকে ৪০ দিনের দক্ষতা উন্নয়নের প্রশিক্ষণে প্রেরণ করা হয় যেখানে সকলস্তরের প্রশিক্ষকবৃন্দকে প্রশিক্ষণ মুল্যায়নের জন্য প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। প্রোজেক্টের চুক্তি অনুযায়ী একটি নতুন বিভাগ Department of Educational Planning Affairs (DEPA) চালু করা হয়েছে যার মাধ্যমে প্রশিক্ষণ মুল্যায়ন করা হয়। টিআইসিআই -এর কৌশলগত লক্ষ্য অর্জনে কোর্সসমূহ কীভাবে অবদান রাখছে -তা নির্ণয়ের নিমিত্তে কোর্সসমূহ মূল্যায়ন খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। টিআইসিআই –এর কোর্সসমূহের মূল্যায়ন কৌশল নিচে আলোচিত হল:

 

টিআইসিআই প্রশিক্ষণের কার্যকারিতা মূল্যায়নের জন্য কার্কপ্যাট্রিক মডেল (Kirkpatrick Model) অনুযায়ী চারটি প্রাথমিক স্তরের উপাত্ত ব্যবহার করে -যা নিম্নরূপ:

 

১) প্রতিক্রিয়া: প্রশিক্ষণার্থীদের প্রতিক্রিয়া নির্ধারণে প্রশিক্ষণোত্তর জরিপ;

 

২) শিখনঃ কি শিখেছে তা নির্ধারণ করার জন্য প্রাক-পরীক্ষা এবং কোর্সোত্তর পরীক্ষার আয়োজন;

 

৩) আচরণ: কোর্সসমূহ প্রশিক্ষণার্থীদের কোনও আচরণগত পরিবর্তন সাধন করেছে কি না তা নির্ধারণের জন্য শিক্ষার্থী এবং প্রশিক্ষকদের মধ্যে আচরণ, সাক্ষাৎকার এবং কর্মকান্ড পর্যবেক্ষণ।

 

৪) ফলাফল: প্রশিক্ষণার্থীদের প্রতিষ্ঠান সামগ্রিকভাবে উপকৃত হয়েছে কিনা তা নির্ধারণের জন্য প্রশিক্ষণার্থীদের কাজের মূল্যায়ন।

 

প্রশিক্ষণ মূল্যায়ন মডেল:

 

প্রশিক্ষণ প্রোগ্রাম মূল্যায়ন করার জন্য একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে প্রশিক্ষণ প্রোগ্রামের কার্যকারিতা নির্ধারণের কৌশল তৈরি করতে হয়। এক্ষেত্রে, টিআইসিআই প্রশিক্ষণ কোর্সসমূহ মূল্যায়নের জন্য Kirkpatrick Model অনুসরণ করে KOICA প্রোজেক্টের মাধ্যমে আগত কোরিয়ান এক্সপার্টদের সহযোগীতায় টিআইসিআই মুল্যায়নের একটি মডেল তৈরী করেছে যেখানে চারটি স্তর রয়েছে। স্তরসমূহের পাশাপাশি এই মডেলে প্রশিক্ষণের ফলাফলসমূহকে ছয় ভাগে ভাগ করা হয়েছে, যথা:

 

১) প্রতিক্রিয়া ফলাফল

২) শিখন ফলাফল,

৩) আচরণ ও দক্ষতা ভিত্তিক ফলাফল,

৪) প্রভাবপূর্ণ ফলাফল,

৫) পরিণাম (Result) এবং

৬) বিনিয়োগ প্রত্যর্পণ।

 

প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট হিসাবে টিআইসিআই ১ থেকে ৩ লেভেল পর্যন্ত মূল্যায়ন সম্পাদন করে।

 

ক) লেভেল ১ থেকে ৩ পর্যন্ত মূল্যায়ন:

প্রশিক্ষণ শেষ হওয়ার পরে লেভেল ১ এবং লেভেল ২ -এর ফলাফল (প্রতিক্রিয়া এবং শেখার) সংগ্রহ করা হয়। প্রশিক্ষণ শেষ হওয়ার ০৬ মাস পরে প্রয়োগক্ষেত্রে অর্থাৎ প্রশিক্ষণার্থীদের কর্মস্থলে গিয়ে লেভেল-৩ এর ডাটা (আচরণ / দক্ষতা) সংগ্রহ করা হয়। প্রশিক্ষণের প্রয়োজনীয়তা, প্রোগ্রামের উদ্দেশ্য এবং প্রশিক্ষণের কৌশলগত কারণগুলির ভিত্তিতে তৈরীকৃত মূল্যায়নের মাধ্যমে ফলাফলগুলি সংগ্রহ করা হয়।

 

খ) প্রশিক্ষণ-পূর্ব (Pre-test) এবং প্রশিক্ষণ-উত্তর পরীক্ষা (Post-test):

 

মূল্যায়নের একটি উপায় হল প্রথমে ফলাফলের একটি প্রশিক্ষণ-পূর্ব ডাটা সংগ্রহ করা। প্রশিক্ষণের পরে আবার ফলাফলসমূহের পরিমাপণ করা। এটিকে প্রশিক্ষণোত্তর মূল্যায়ন হিসাবে উল্লেখ করা হয়। প্রশিক্ষণোত্তর পরিমাপণ ও প্রশিক্ষণ-পূর্ব পরীক্ষার তথ্যসমূহের তুলনা থেকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে অর্জিত ফলাফলের মাত্রা জানার সুযোগ তৈরী হয়।


Share with :

Facebook Facebook